হায়েয বা মাসিকের জন্য কখন থেকে নামায পড়া মাফ হবে বা পড়তে হবে না?

উত্তরঃ- যখনই মাসিক শুরু হবে তখন থেকে মাসিক শেষ হওয়ার পূর্ব পর্যন্ত, মধ্যবতী সময়ের সব ওয়াক্তের নামায  মাফ অর্থাৎ নামায পড়তে হবে না।। যদিও কোনো ওয়াক্তের ফরয নামাযের মধ্যে হায়েয…

Continue Reading হায়েয বা মাসিকের জন্য কখন থেকে নামায পড়া মাফ হবে বা পড়তে হবে না?

কিভাবে ঘুমালে অযু ভঙ্গ হবে?

উত্তরঃ- যদি কোনো ব্যক্তি কাত হয়ে বা হেলান কিংবা কোনো কিছুতে ঠেস লাগিয়ে এমনভাবে ঘুমায় যে, তা সড়িয়ে ফেললে, সে পড়ে যাবে। তখন এমতাবস্থায় অযু ভঙ্গ হবে।নবী করিম (সা) বলেছেন…

Continue Reading কিভাবে ঘুমালে অযু ভঙ্গ হবে?

কতটুকু রক্ত বা পুজ বের হলে অযু ভঙ্গ হবে?

উত্তরঃ- শরিরের কোনো স্থান থেকে রক্ত বা পুজ যদি গড়িয়ে ক্ষতস্থান অতিক্রম করে, তাহলে অযু ভঙ্গ হবে। আর, যদি ক্ষতস্থান অতিক্রম না করে, তাহলে অযু ভঙ্গ হবে না।তথ্যসূত্র ঃ- হেদায়া ১ম…

Continue Reading কতটুকু রক্ত বা পুজ বের হলে অযু ভঙ্গ হবে?

ক্ষতস্থান থেকে কীট বের হলে অযু ভঙ্গ হবে কি?

উত্তরঃ- ক্ষতস্থান থেকে কীট বের হলে অযু ভঙ্গ হবে না। তবে, পায়খানার রাস্তা দিয়ে কোনো কীট বের হলে অযু ভঙ্গ হবে। কারন, মূলত কীট নাপাক না হলেও, তার দেহে লেগে…

Continue Reading ক্ষতস্থান থেকে কীট বের হলে অযু ভঙ্গ হবে কি?

নামাযে অট্টহাসির কারণে অযু ভঙ্গ হবে কি?

উত্তরঃ- ক্বিয়াস এবং যুক্তি অনুযায়ী নামাযের মধ্যে অট্টহাসির কারনে, অযু ভঙ্গ হওয়ার কথা না। এটা ঈমাম শাফেয়ী (র) এর মত ও। কারণ, এটা নির্গত নাজাসত নয়। এ জন্য জানাযার নামাযে, তেলাওয়াতে…

Continue Reading নামাযে অট্টহাসির কারণে অযু ভঙ্গ হবে কি?

হঠাৎ কোনো মাসে ১০ দিনের বেশি মাসিক (স্রাব) হলে করণীয় বা বিধান কি?

হঠাৎ কোনো মাসে ১০ দিনের বেশি মাসিক (স্রাব) হলে করণীয় বা বিধানযদি কোনো মহিলার ৩, ৪ বা ৫-৯ দিন মাসিক হওয়ার অভ্যাস থাকে,  আর কোনো মাসে হঠাৎ ১০ দিনের বেশি মাসিক…

Continue Reading হঠাৎ কোনো মাসে ১০ দিনের বেশি মাসিক (স্রাব) হলে করণীয় বা বিধান কি?

এক বা দুইদিন মাসিক হয়ে, ১৫ দিন মাসিক বন্ধ থাকলে, করণীয় কি?

উত্তরঃ- নিম্নে এক বা দুইদিন মাসিক হয়ে, ১৫ দিন মাসিক বন্ধ থাকলে, করণীয় কি। তা দেওয়া হলোঃযদি কোনো মহিলার এক বা দুই দিন মাসিক হয় এবং তারপর যদি ১৫ দিন মাসিক…

Continue Reading এক বা দুইদিন মাসিক হয়ে, ১৫ দিন মাসিক বন্ধ থাকলে, করণীয় কি?

দুই হায়েয বা মাসিকের মধ্যে পাক থাকার সময় কতদিন?

দুই হায়েয বা মাসিকের মধ্যে পাক থাকার সময় কতদিন?দুই হায়েয বা মাসিকের মধ্যে পাক বা পবিত্র থাকার সর্বনিম্ন মুদ্দৎ বা সময় হলো ১৫ দিন।  আর সর্বোচ্চ সময় নির্ধারিত নেই।উদাহরণস্বরুপ বলা…

Continue Reading দুই হায়েয বা মাসিকের মধ্যে পাক থাকার সময় কতদিন?

কামিল ১ম ও ২য় পর্ব পরীক্ষার পরিবর্তিত রুটিন ২০১৯

ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে কামিল ১ম ও ২য় পর্ব পরীক্ষার পরিবর্তিত সময়সূচী প্রকাশিত হয়েছে।নিম্নে  ২০১৮ সালের কামিল ১ম ও ২য় পর্বের পরীক্ষার পরিবর্তিত সময়সূচী দেওয়া হলোঃ-ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক পরিচালিত কামিল…

Continue Reading কামিল ১ম ও ২য় পর্ব পরীক্ষার পরিবর্তিত রুটিন ২০১৯

মাসিকের (হায়েজ) বিধানসমূহ বিস্তারিত | Provisions of Periods (haidh) detailed

ইসলামের দৃষ্টিতে মাসিকের বিধানসমূহ - Provisions of periods in the view of the islam সাধারন বিধানঃ ১) মাসিক চলাকালীন সময়ে ফরয, নফল কোনো নামায পড়া জায়েয নয় এবং রোযা রাখাও…

Continue Reading মাসিকের (হায়েজ) বিধানসমূহ বিস্তারিত | Provisions of Periods (haidh) detailed