অনার্স ভর্তি ২০২৪ । জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি ২০২৩-২০২৪

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২৩-২০২৪ শিক্ষাবর্ষে অনার্স ভর্তি ২০২৪ এর সংশোধিত বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে। অনার্স ভর্তির সকল খুঁটিনাটি তথ্য জানতে স্ক্রল করে পড়তে থাকুন। যদিও টাইটেলে “অনার্স ভর্তি ২০২৪” সাল লেখা আছে কিন্ত একাডেমিক নিয়মানুযায়ী এটি ২০২৩ সালের অনার্স ভর্তির পোস্ট। ২০২৩-২০২৪ হচ্ছে উক্ত ভর্তির শিক্ষাবর্ষ।

এই পোষ্টে যা যা আছে - এক পলকে দেখে নিন hide

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অনার্স ভর্তি ২০২৪

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি ২০২৩-২০২৪ শিক্ষাবর্ষের অনার্স ১ম বর্ষের ভর্তির প্রাথমিক আবেদনের সময় বর্ধিত করা হয়েছে। এছাড়া ভর্তি যোগ্যতায় অনেক পরিবর্তন আনা হয়েছে। বর্ধিত সময়ানুযায়ী ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ তারিখ বিকাল ৪ টা হতে শুরু হবে এবং চলবে ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ তারিখ রাত ১২ টা পর্যন্ত। ভর্তি যোগ্যতা নিচে দেখুন।

বি.দ্র : অনার্স ভর্তির ১ম মেধাতালিকার ফল প্রকাশিত। (পোস্টটি সর্বশেষ আপডেট করা হয়েছে ১৮ মার্চ দুপুর ০৩ টায়)

আবেদন শুরু১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ হতে
আবেদন চলবে২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ পর্যন্ত
আবেদন করার লিংকclick here
আবেদন করার নিয়মএখানে দেখুন
১ম মেধাতালিকার ফল প্রকাশ১৮ মার্চ ২০২৪
ক্লাশ শুরু২১ এপ্রিল ২০২৪ হতে

আমাদের ফেসবুক গ্রুপে প্রশ্ন করুন National University Helpline

অনার্স ভর্তি হতে কত পয়েন্ট লাগবে ২০২৪

১) বাংলাদেশে স্বীকৃত যে কোনো শিক্ষা বোর্ড বা উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় অথবা কারিগরি শিক্ষা বোর্ড (hsc বিজনেস ম্যানেজম্যান্ট বা ডিপ্লোমা ইন কমার্স) হতে মানবিক / ব্যবসায় শিক্ষা শাখা থেকে ২০২২/২০২৩ সালের HSC বা সমমান পরীক্ষা এবং ২০২০/২০২১ সালের SSC বা সমমান উভয় পরীক্ষায় (৪র্থ বিষয়সহ) কমপক্ষে জিপিএ ২.৫০ পয়েন্ট সহ (উভয় পরীক্ষা মিলে) মোট ৬. প্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন।

২) বাংলাদেশে স্বীকৃত যে কোনো শিক্ষা বোর্ড বা উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় অথবা কারিগরি শিক্ষা বোর্ড (hsc ভোকেশনাল) হতে বিজ্ঞান শাখা থেকে ২০২২/২০২৩ সালের HSC বা সমমান পরীক্ষা এবং ২০২০/২০২১ সালের SSC বা সমমান উভয় পরীক্ষায় (৪র্থ বিষয়সহ) কমপক্ষে জিপিএ ৩.০০ পয়েন্ট সহ (উভয় পরীক্ষা মিলে) মোট ৬.৫০ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন।

৩) আবেদনকারীর HSC / সমমান শ্রেণির পঠিত বিষয়সমূহ থেকে ভর্তি যোগ্য (Eligible) বিষয় নির্ধারন করা হবে। উক্ত পঠিত বিষয়ে (২০০ নম্বরের মধ্যে) ন্যূনতম গ্রেড পয়েন্ট ৩.০০ থাকতে হবে।

আরও পড়ুন : উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যাল্লয় ডিগ্রি ভর্তি

আরও পড়ুন : উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যাল্লয় অনার্স ভর্তি

৪) বিদেশী সার্টিফিকেটধারী আবেদনকারীদের ক্ষেত্রেও বাংলাদেশ -এ স্বীকৃত যে কোন শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক তাদের অর্জিত SSC ও HSC পর্যায়ের নম্বর পত্রের সমতা নিরুপণ করা হলে, তারাও ভর্তির জন্য প্রাথমিক আবেদন করতে পারবে। তবে এক্ষেত্রে আবেদনকারীকে ভর্তি নির্দেশিকার সকল শর্ত পূরণ করতে হবে।

৫) আবেদনকারীকে ২০২১/২০২২ সালের O-level পরীক্ষায় কমপক্ষে ৩টি বিষয়ে B গ্রেডসহ অন্তত ০৪ টি বিষয়ে উত্তীর্ণ এবং ২০২২/২০২৩ সালের A-level পরীক্ষায় ০১টি বিষয়ে B গ্রেডসহ অন্তত ০২টি বিষয়ে উত্তীর্ণ হতে হবে। তবে এক্ষেত্রে আবেদনকারীকে ভর্তি নির্দেশিকার অন্যান্য সকল শর্ত পূরণ করতে হবে। এ সকল প্রার্থীদের ডীন, স্নাতকপূর্ব শিক্ষাবিষয়ক স্কুল, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে সরাসরি যোগাযোগ করতে হবে।

আরও দেখুন : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি তথ্য বিস্তারিত দেখুন

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অনার্স ভর্তি পদ্ধতি

চলতি বছর / সেশনে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স প্রোগ্রামে ভর্তি হতে চাইলে প্রত্যেক যোগ্য প্রার্থীকে নির্ধারিত (২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪) তারিখের মধ্যে সঠিকভাবে প্রাথমিক আবেদন অবশ্যই করতে হবে। (বি.দ্র. প্রাথমিক আবেদন না করলে পরে আর এই বছর অনার্সে ভর্তি হতে পারবেন না). এরপর ১ম মেধাতালিকার ফলাফল প্রকাশিত হবে। মেধা তালিকায় যারা উত্তীর্ণ হবে তাদেরকে নির্ধারিত তারিখের মধ্যে চূড়ান্ত ভর্তি ফরম পূরণ করতে হবে।

আরও দেখুন : অনার্সে যেভাবে আবেদন করলে চান্স পাবেন

ফরমটি প্রিন্ট করে (সংশ্লিষ্ট কলেজ কর্তৃক নির্ধারিত) মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে ভর্তি ফি প্রদান করে উক্ত ফরমের উপর RB number (টাকা পাঠানোর ট্রানজেকশন নম্বর) লিখে এবং সাক্ষরের জায়গায় সাক্ষর দিয়ে সংশ্লিষ্ট কলেজে উক্ত ফরম সহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নির্ধারিত তারিখের মধ্যে জমা দিতে হবে।

আর যারা ১ম মেধাতালিকায় চান্স না পাবে, তাদের করণীয় কি কি এবং রিলিজ স্লিপে যারা আবেদন করবে তাদের কি কি করণীয় তা সম্বন্ধ্যে বিস্তারিত তথ্যবলি আমাদের ওয়েবসাইটে পর্যায়ক্রমে বলে দেয়া আছে। আপনারা চাইলে এখান থেকে শুরু করতে পারেন!

  1. অনার্স প্রফেশনাল ভর্তি বিজ্ঞপ্তি
  2. ডিগ্রি ভর্তি

অনার্স ১ম বর্ষে বাছাই পদ্ধতি ২০২৪

ভর্তি পরীক্ষা ছাড়াই এসএসসি ও এইচএসসি ফলাফলের ভিত্তিতে ছাত্রছাত্রী ভর্তি করানো হবে। প্রতিটি কলেজের জন্য আলাদাভাবে মেধা তালিকা তৈরী করে পরীক্ষার্থীদের পছন্দক্রম অনুযায়ী ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির বিষয় বরাদ্দ দেয়া হবে।

একই প্রতিষ্ঠান/কলেজে একই বিষয়ে দুই বা ততোধিক আবেদনকারীর প্রাপ্ত ফলাফল একই হলে, সে ক্ষেত্রে সকল আবেদনকারীকে পর্যায়ক্রমে চতুর্থ বিষয়সহ SSC ও HSC পরীক্ষায় প্রাপ্ত জিপিএ এর যথাক্রমে ৪০% ও ৬০% এবং প্রয়োজন হলে SSC ও HSC পরীক্ষার মোট প্রাপ্ত নম্বরের যথাক্রমে ৪০% ও ৬০% এর ভিত্তিতে মেধা তালিকা প্রকাশ করা হবে।

এর পরেও যদি দুই বা ততোধিক আবেদনকারীর প্রাপ্ত ফলাফল একই হয়, তা হলে যার বয়স কম হবে তাকে অগ্রাধিকার দেয়া হবে।

অনার্স ভর্তির আবেদন ফি ও কলেজ চয়েজ

অনার্স ১ম বর্ষে ভর্তি কার্যক্রমের আবেদন ফি ৩৫০/- টাকা কলেজ কর্তৃক নির্ধারিত মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে প্রদান করতে হবে। বি.দ্র. আবেদন ফরমে কোনো ভুল থাকলে, আবেদনকারী তা Cancel করে নতুন করে আবেদন করতে পারবে।

তবে ১ বারের বেশি Cancel করা যাবেনা। আর, কলেজ কর্তৃক আবেদন ফরমটি নিশ্চিত হলে, তা আর Cancel করা যাবে না। প্রার্থী/আবেদনকারী শুধুমাত্র ১টি কলেজে আবেদন করতে পারবে।

অনার্স ভর্তির প্রাথমিক আবেদন নিয়ম

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে অনার্স ১ম বর্ষে ভর্তির প্রাথমিক আবেদন পাচটি ধাপে সম্পন্ন করতে হয়ে থাকে। আবেদন করার আগে নিম্নোক্ত কাগজপত্র বা তথ্যাদি সাথে রাখুন। প্রাথমিক আবেদন করার নিয়ম এবং কলেজ নির্বাচন করার নিয়ম নিম্নের লিংক সমূহ থেকে দেখে নিন। প্রথমে আবেদন করতে যা যা লাগবে দেখুন নিম্নরুপ :

  • SSC বা সমমান (দাখিল, ভোকেশনাল) পরীক্ষার রোল ও রেজিস্ট্রেশন নম্বর
  • HSC বা সমমান (আলিম, ভোকেশনাল) পরীক্ষার রোল ও রেজিস্ট্রেশন নম্বর
  • এক কপি রঙ্গিন ছবি (১২০ বাই ১৫০ পিক্সেল, সাইয ৫০ kb)
  • একটি ইমেইল এড্রেস ও একটি মোবাইল নম্বর

আবেদন করার লিংক : Apply from here

আরও দেখুন: অনার্স ভর্তির প্রাথমিক আবেদন নিয়ম এখানে দেখুন

এবং যেভাবে আবেদন করলে চান্স হবে

অনলাইনে আবেদন করার পর ফরমটি প্রিন্ট করতে হবে। ফরমটি প্রিন্ট করার পর আবেদনকারী ফরমটিতে সাক্ষর দিয়ে নিম্নোক্ত কাগজপত্র সহ আবেদন ফি বাবদ ৩৫০ টাকা সংশ্লিষ্ট কলেজ কর্তৃক প্রদত্ত মোবাইল নম্বরে প্রদান করতে হবে। তারপর কাগজপত্র কলেজে জমা দিতে হবে। কলেজে এইসব জমা দেয়ার পর যদি আপনার (আবেদন ফরমে দেওয়া) নম্বরে “ফরম জমা হয়েছে বলে” একটি মেসেজ আসে, তখন বুঝবেন আপনার প্রাথমিক আবেদন সম্পূর্ণ হয়েছে। নতুবা অবশ্যই কলেজের সাথে যোগাযোগ করুন।

আবেদন ফরমের সাথে যা যা জমা দিতে হবে

আবেদনকারীকে প্রথমে প্রিন্ট করা প্রাথমিক আবেদন ফরমটির নির্ধারিত স্থানে স্বাক্ষর করতে হবে। তারপর উক্ত আবেদন ফরমের সাথে প্রার্থীর SSC ও HSC / সমমান পরিক্ষার সত্যায়িত নম্বরপত্র / মার্কশীট এর ফটোকপি এবং প্রার্থীর SSC ও HSC / সমমান পরিক্ষার রেজিস্ট্রেশন কার্ডের ফটোকপি, এবং আবেদন ফি বাবত ৩৫০/- টাকা সংশ্লিষ্ট কলেজে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে জমা দিতে হবে।

প্রাথমিক আবেদন করার পর করণীয়

প্রাথমিক আবেদন করার পর কিছুই করতে হবে না। তবে প্রাথমিক আবেদনের ফি জমা দেওয়ার পর কলেজ থেকে যদি প্রার্থীর মোবাইলে SMS না আসে তাহলে অনলাইনের মাধ্যমে জানতে পারবেন যে আপনার আবেদনের ফি কলেজে জমা হয়েছে কি না। তা দেখতে এখানে ক্লিক করুন

আবেদন ফরম জমা দেওয়ার কয়েকদিনের মধ্যে আবেদনকারী ভর্তির জন্য নির্বাচিত হলে সংশ্লিষ্ট কলেজ আবেদনকারীর প্রাথমিক আবেদন Online -এ নিশ্চায়ন করবে এবং সে সকল আবেদনকারীর মোবাইল নম্বরে SMS এর মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে।

উল্লেখ্য যে, প্রাথমিক আবেদন নিশ্চায়ন ব্যতীত কোন প্রার্থীই ভর্তির যোগ্য বলে বিবেচিত হবে না। কলেজে আবেদনের ফি জমা দেওয়ার পরে প্রার্থী তার মোবাইল ফোনে SMS না পেলে বুঝতে হবে যে, তার আবেদন কলেজ কর্তৃক নিশ্চায়ন করা হয়নি। এক্ষেত্রে প্রার্থীকে সংশ্লিষ্ট কলেজে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে যোগাযোগ করতে হবে অথবা অনলাইনে চেক করে নিতে হবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অনার্স ভর্তি ফলাফল

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অনার্স ভর্তির ফলাফল (১ম ও ২য় মেধাতালিকা) প্রকাশিত হয়। প্রাথমিক আবেদন শেষ হওয়ার ৩-৪ দিন পর ভর্তি রেজাল্ট প্রকাশিত হয়। তবে ফলাফল কয়েকটি ধাপে প্রকাশ করা হয়। মেধাতালিকায় যার পয়েন্ট বেশি থাকবে সেই ১ম মেরিটে ভর্তির সুযোগ পাবে। তবে কেউ ১ম মেধাতালিকায় চান্স না পেলে তার জন্য (আসন খালি থাকা সাপেক্ষে) ১ম মাইগ্রেশন ও ২য় মেধা তালিকা এবং রিলিজ স্লিপ রেজাল্ট এর সুযোগ থাকবে। মেধা তালিকায় উত্তীর্ণ হওয়ার পর যা যা করণীয় তা সহ মেধাতালিকার ফলাফল দেখুন এখানে

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অনার্স চূড়ান্ত ভর্তির নিয়ম

২০২৩-২০২৪ শিক্ষাবর্ষের অনার্স ১ম বর্ষের চূড়ান্ত ভর্তির জন্য প্রার্থীকে এখান থেকে (Honours Tab -এ থেকে) Honours applicant’s Login -এ ক্লিক করে অথবা জাস্ট এই লিংকে (ওয়েবসাইটে প্রদর্শিত তথ্য ছকে) প্রার্থীর রােল নম্বর ও পিন সঠিকভাবে এন্ট্রি দিয়ে Login করুন।

এরপর Admission Information নামে একটি পেইজ তথা আপনি যে কলেজে নির্বাচিত হয়েছেন, তা দেখতে পাবেন। এবং একইসাথে Application Form নামে একটি অপশন থাকবে, চূড়ান্ত ভর্তির জন্য সেটাতে ক্লিক করতে হবে।

তারপর, যে পেজ আসবে তাতে আপনার নাম, পিতার সহ আপনি যে বিষয়ে চান্স পেয়েছেন তা সম্বলিত একটি পেজ আসবে। সেখানে আপনাকে Nationality এর বক্সে Bangladeshi লিখবেন। তারপর, নিজ ধর্ম select করবেন। এরপর, একজন গার্জিয়ান এর নাম দিবেন। তারপর, গার্জিয়ান এর ফোন নম্বর এবং তার বার্ষিক আয় দিবেন।

এরপর নিচে একটি লেখা থাকবে যে, Do you want to change your assignment subject on based your preference list? অর্থাৎ আপনি যদি ১ম চয়েজ না পান তাহলে Yes এ ক্লিক করবেন নতুবা No তে ক্লিক করবেন। এরপর নিচের দিকে (বাম পাশে) আপনার স্বায়ী এবং (ডান পাশে) বর্তমান ঠিকানা দিবেন। তারপর সবকিছু সঠিক হলে Save Information এ ক্লিক করুন।

তারপর যে পেজ আসবে, সেখান থাকা Download অপশনে ক্লিক করে, ভর্তি ফরম ডাউনলোড করে প্রিন্ট করুন। একটি থাকবে কলেজ কপি এবং একটি থাকবে স্টুডেন্ট কপি। এরপর কলেজে উপরিউক্ত প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সহ ফরমটি জমা দিবেন। তারপর কলেজ কর্তৃপক্ষ অনলাইনে আপনাকে নিশ্চায়ন করলে আপনার ভর্তির প্রক্রিয়া শেষ হবে।

অনার্স ভর্তি হতে যেসব কাগজপত্র লাগবে

একেক কলেজ একেক ধরণের কাগজপত্র জমা নিচ্ছে। তবে নিম্নে দেওয়া ১ থেকে ৪ পর্যন্ত কাগজপত্র গুলো সবারই লাগবে। বাকিগুলো কলেজভেদে লাগবে। তাই আপনি যে কলেজে ভর্তি হবেন সে কলেজের ভর্তি বিজ্ঞপ্তিটি দেখবেন, তাহলে বুঝে যাবেন মোট কতটি কাগজপত্র আপনাকে জমা দিতে হবে।

  1. অনলাইনে পূরণকৃত ভর্তি ফরম – ২ কপি। (একটি কলেজ কপি এবং অন্যটি স্টুডেন্ট কপি)
  2. পাসপোর্ট সাইজ ছবি ৪ টি এবং পেছনে নাম লিখে দিতে হবে। (কলেজভেদে কম বেশি হতে পারে)
  3. SSC বা সমমান পরীক্ষার নম্বরপত্র বা মার্কশিট – মূলকপি সহ ফটোকপি ২ টি
  4. HSC বা সমমান পরীক্ষার নম্বরপত্র বা মার্কশিট – মূলকপি সহ ফটোকপি ২ টি
  5. SSC বা সমমান পরীক্ষার রেজিস্ট্রেশন কার্ডের ফটোকপি – ২ কপি।
  6. HSC বা সমমান পরীক্ষার রেজিস্ট্রেশন কার্ডের ফটোকপি – ২ কপি।
  7. HSC বা সমমান পরীক্ষার প্রশংসাপত্র – মূলকপি সহ ফটোকপি ২ টি
  8. পাঠ বিরতি বা শিক্ষা বিরতি সনদপত্র। (২০২২ সালে এইচএসসি পাশ করছে শুধু তাদের জন্য)
  9. কোটার সনদপত্র। যারা মুক্তিযোদ্ধা বা পোষ্য কোটায় আবেদন করছেন তাদের জন্য প্রযোজ্য।

অনার্স ভর্তি হতে কত ফি লাগবে

আপনি যদি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে সরকারি কোনো কলেজে ভর্তি হোন তাহলে সর্বনিম্ন ৪০০০/- টাকা এবং সর্বোচ্চ ৫০০০/- টাকা লাগবে আর যদি কোনো বেসরকারি কলেজে ভর্তি হতে চান তাহলে সর্বনিম্ন ৭০০০/- টাকা এবং সর্বোচ্চ ২০,০০০/- টাকা লাগতে পারে।

অনার্স কম্পলিট করতে যত টাকা লাগবে

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে অনার্স কলেজ সমূহ দুই ধরণের হয়ে থাকে। যথা: সরকারি ও বেসরকারি। সরকারি কলেজে পড়লে বেতন লাগে না। তাই সরকারি কলেজে অনার্স করতে টাকা কম টাকা লাগে। আর বেসরকারিতে দ্বিগুণ বা তার চেয়েও বেশি লাগে।

তবে বেসরকারিতে পড়াশুনার মান ভালো হয় এবং চাকরির বেলায়ও মান থাকবে। তবে শর্ত হচ্ছে আপনি যেখানেই পড়ুন না কেন, ভালো মানের রেজাল্ট করতে হবে। কেননা চাকরির বেলায় সার্টিফিকেট সরকারি না বেসরকারি তা দেখে না। বরং রেজাল্ট টাই দেখে।

আপনি যদি সরকারি কোনো কলেজে অনার্স পড়তে চান তাহলে ৪ বছর মিলে ভর্তি ফি সহ মাত্র ২৫ থেকে ৩০ হাজার টাকা লাগবে। আর যদি বেসরকারিতে অনার্স করতে চান তাহলে ৪ বছর মিলে ভর্তি ফি সহ ৭৫ হাজার থেকে ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা লাগবে। এছাড়া থাকা খাওয়ার খরচ আলাদা। তাই সেগুলো মিলে বেসরকারি কলেজে ২ থেকে ৩ লক্ষ টাকা লেগে যেতে পারে।

অনার্স সংশোধিত ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২৪

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অনার্স সংশোধিত ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২৪
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অনার্স সংশোধিত ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২৪

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অনার্স ভর্তি ২০২৪ বিজ্ঞপ্তি

অনার্স ভর্তি ২০২৪ - জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২৩-২০২৪
অনার্স ভর্তি ২০২৪ – জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২৩-২০২৪
অনার্স ভর্তি ২০২৪ বিজ্ঞপ্তি (২)
অনার্স ভর্তি ২০২৪ বিজ্ঞপ্তি (২)
অনার্স ভর্তি ২০২৪ বিজ্ঞপ্তি (৩)

Download Honours Admission Circular 2023-2024 from here

Download Honours Admission Guideline 2023-2024 from here

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অনার্স ভর্তি ২০২৩ বিজ্ঞপ্তি

অনার্স ভর্তি ২০২৩ - জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অনার্স ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২২-২০২৩
অনার্স ভর্তি ২০২৩ – জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অনার্স ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২২-২০২৩

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২২

অনার্স ভর্তি ২০২২ - জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অনার্স ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২১-২০২২
অনার্স ভর্তি ২০২২ – জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অনার্স ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২২

আরও পড়ুন

771 thoughts on “অনার্স ভর্তি ২০২৪ । জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি ২০২৩-২০২৪”

  1. আমার ssc 3.11 আর hsc 3.33 আমি কি অনাস আবেদন করতে পারবো প্লিজ একটু জানাবেন ভাইয়া।

    1. আজিজুর রহমান

      আমার, আলিম এক্সাম ২০২০ এ,। আমি কি অনার্সে ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবো

  2. হানিফ

    ২০১৮ তে এসএসসি এবং ২০২১ শে এইচএসসি। গত বছর কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়নি। তাহলে এ বছর ভর্তি হতে কি শিক্ষা বিরতি সনদপত্র লাগবে? শিক্ষা বিরতি সনদপত্রটা পাবো কোথায় কিংবা কোথায় থেকে সংগ্রহ করব যদি একটু বলে দিতেন তাহলে খুব উপকার হত।

  3. যাদের ssc 3.50 কম আছে তাদের কোনো ভাবে অনার্স অনলাইন আবেদন হবে না?

  4. সোহাগ

    ভাইয়া আসসালামু আলাইকুম আমার এসএসসি বিজ্ঞান বিভাগ থেকে পাসিং ইয়ার ২০১৭ কিন্তু আমার এইচএসসি বিএম কলেজ থেকে পাসিং ইয়ার ২০২০. এখন কি আমি জাতীয় বিশ্বদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার কোন সুযোগ পাবো এবং কোন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ পাবো?
    গতবার আমি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং GST তে ভর্তি পরিক্ষায় অংশ গ্রহণ করেছি। এবার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন ফরম পূরন করতে গিয়ে এসএসসি পাসিং ইয়ার ২০১৮-১৯ দেখায় ভর্তি বিজ্ঞাপনে তাই দেওয়া আমি তো আবেদন করতে পারতেছি না, এখন আমার করণীয় কি যদি বলতেন তাহলে অনেক উপকৃত হতাম

    1. ওয়ালাইকুমুস সালাম। ২০১৭ সালে এসএসসি পাশ হলে জাতীয়তে ভর্তি হতে পারবে না। তবে শেষবারের মত এবার অনার্স প্রফেশনালে ভর্তি হতে পারবে। এছাড়া আর জাতীয়তে অনার্স করার সুযোগ নাই। আর জাতীয়তে আবেদন করলেও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা দিতে পারবে। তবে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে যেকোন সালে এসএসসি পাশ করলেও অনার্স করতে পারবে।

  5. মোঃ ফয়সাল

    সার্টিফিকেটে আমার আব্বু আম্মুর নামে ভুল ছিল, তা কিছুদিন আগে ঠিক করিয়েছি। কিন্তু এখন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে এপ্লাই করতে গেলে আগের ভুল বানান গুলো আসছে, এমতাবস্থায় আমার করনীয় কি?
    Ministry of Education তাদের সাইটে রেজাল্ট চ্যাক করলে সঠিক নাম গুলো আসছে। আমি কি এখন ভুল নাম গুলো দিয়েই এপ্লাই করে ফেলব? যখন এপ্লিকেশন ফ্রম জমা দিব তখন সঠিক নাম গুলো দিয়ে লিখে জমা দিয়ে দিব?

  6. moriom akter

    আমি আবেদন করি নাই এখন করতে পারবো।

  7. Farhadmohammadnizum

    আমি এসএসসি ২০১৮ তে আর এইচএসসি ২০২১ সালে
    আমি ২০২৩ সালে অর্নাসের আবেদন করতে পারবো কী?

  8. Farhad mohammad nizum

    আসসালামু আলাইকুম ভাইয়া
    এসএসসি ২০১৮ আর এইচএসসি ২০২১ সালে।
    আমি কী অর্নাসে ২০২২-২০২৩ সালে আবেদন করতে পারবো।

  9. আদাব ভাইয়া,,,,
    আমার বান্ধবী নবীগঞ্জ থাকতো,, তার পয়েন্ট হচ্ছে ৬.৫। কিন্তু নবীগঞ্জ সরকারি কলেজে ভর্তির জন্য ৭ পয়েন্ট লাগে৷ তাই সে ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারেনি৷ আমি ইডেন মহিলা কলেজ সম্পর্কে যতটুকু অনলাইন থেকে জানতে পারলাম অনার্সের জন্য মানবিক বিভাগে ভর্তি হতে ৬ পয়েন্ট লাগে৷
    আমার ফ্রেন্ড বর্তমানে ঢাকায় আছে। সে পড়তে চায় সে কি এখন ঢাকায় কোথাও অনার্সের জন্য ভর্তি হতে পারবে??? প্লিজ ভাইয়া একটু ইনফরমেশন দিয়ে হেল্প করুন৷

  10. আমার ssc রেজাল্ট 2.61 এবং hsc রেজাল্ট 4.53 আমি কি অনার্স এ ভর্তি হতে পারবো

  11. Samia isla.

    আসসালামুআলাইকুম ভাইয়া, আমার এসএসসি ২০১৮-২০১৯ আর এইচএসসি ২০২০-২০২১’ আমি কি ২০২৩ এ অনার্স এ আবেদন করতে পারব

    1. ওয়ালাইকুমুস সালাম। sss ও hsc এই দুইটা পরীক্ষার সাল কত? ২০১৮ ও ২০২০ নাকি ২০১৯ ও ২০২১?

  12. Md Ashraful Islam

    আমি ব্যবসায় শিক্ষা শাখা থেকে এসএসসি তে ৩.৭৮ আর এইস এস সি তে ৩.৯২ পেয়েছি আমি কী অনার্সের জন্য আবেদন করতে পারবো?

  13. Sumaiya Amin

    এইবার ও কি পয়েন্টের বিষয়টি একই থাকবে?

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!